আইসিসির প্রস্তাবে তুমুল আপত্তি জানাল ভারতের

নিউজ ডেস্ক:: নতুন ব্রডকাস্টার রুলস তৈরি করতে গিয়ে আগ্রহী প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে আকর্ষণ তৈরি এবং অর্থনৈতিকভাবে দরকষাকষির জন্যই আইসিসি ২০২৩ থেকে শুরু করে ২০৩১ সাল পর্যন্ত সময়ের জন্য নতুন একটি টুর্নামেন্টের অবতারণা করতে যাচ্ছে। টি-টোয়েন্টি এবং ওয়ানডে ফরম্যাটে অনুষ্ঠিত হবে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স কাপ।

এই সময়ের মধ্যে দুটি করে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়ন্স কাপ আয়োজনের পরিকল্পনা আইসিসির। যেখানে অংশ নেবে আইসিসি র্যাংকিংয়ে শীর্ষে থাকা ১০টি করে দল। সদ্য বিলুপ্ত আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আদলেই আয়োজন করা হবে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স কাপের ওয়ানডে টুর্নামেন্টটি।

নতুন প্রস্তাবিত টুর্নামেন্ট যে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে সেটা ছিল বালাই বাহূল্য। কারণ, আইসিসির এই প্রস্তাবের সঙ্গে সম্পূর্ণরূপে দ্বিমত রয়েছে বড় তিনটি ক্রিকেট খেলুড়ে দেশের। ভারত, ইংল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়ার। এরই মধ্যে আইসিসির প্রস্তাব নিয়ে কড়া আপত্তি জানিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড খুব রাগের সঙ্গেই আইসিসির প্রস্তাবের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। আগামী মার্চে আইসিসির যে বোর্ড মিটিংয়ে বিষয়টা উত্থাপন হবে, সেখানে তুমুল বিতর্ক এবং আলোচনার মুখোমুখি হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গত সপ্তাহেই আইসিসি ২০২৩ থেকে ২০৩১ সাল পর্যন্ত মোট ২০টি টুর্নামেন্টের সম্প্রচারের জন্য রদপত্র চেয়ে বিজ্ঞাপন দিয়েছে এবং এ বিষয়ে বিস্তারিত ডকুমেন্টস তারা পাঠিয়েছে সদস্য দেশসমূহ এবং সহযোগি দেশগুলোর বোর্ডের কাছেও। আইসিসির প্রধান নির্বাহী মানু সাওনির পক্ষ থেকে এই ইমেইলটা প্রেরণ কার হয়।

মানু সাওনি ইতিমধ্যেই এ বিষয়টা ব্যাখ্যা করার জন্য পূর্ণ সদস্য এবং সহযোগি সদস্য দেশগুলোতে সফর করাও শুরু করে দিয়েছেন। তিনি ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং জিম্বাবুয়ের মত দেশগুলো সফর করে এলেও ভারতে যাননি বিষয়টা ব্যাখ্যা করার জন্য। বিসিসিআই’র রেগে যাওয়ার পেছনেও এটা একটা কারণ হতে পারে।

আইসিসির প্রস্তাবে ভারতের বিরোধীতার মূল কারণ হচ্ছে, গত বছর অক্টোবরে যখন আইসিসি নতুন পরিকল্পনা প্রকাশ করে, তখন ভারত সেটার তুমুল বিরোধীতা করেছিল। নিজেদের একটা পরিকল্পনাও তখন তারা পাঠিয়েছিল আইসিসির কাছে। যেখানে দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ আয়োজনসহ নানা ক্রিকেটীয় কর্মসূচির একটা বিস্তারিত ক্যালেন্ডার ছিল তাদের।

কিন্তু আইসিসি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সেই ক্যালেন্ডারকে মোটেই আমলে নেয়নি। ভারতের পরিকল্পনাকে পুরোপুরি পাশ কাটিয়ে নতুন প্রস্তাবকে চূড়ান্ত করতে যাচ্ছে তারা। এ কারণেই আইসিসির উপর ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

FaceBook