যেখানে শেষ করেছেন তাপস, সেখান থেকে শুরু করব: মহিউদ্দিন

নিজস্ব প্রতিনিধি:: ঢাকা-১০ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেছেন, নির্বাচিত হতে পারলে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস যেখানে শেষ করেছেন সেখান থেকে শুরু করব। কিছু কিছু জায়গায় উন্নয়ন কাজ বাকি রয়েছে। আমি নির্বাচিত হলে সেসব স্থানে প্রথম হাত দেব।

মঙ্গলবার জিগাতলা বাসস্ট্যান্ড থেকে নির্বাচনী গণসংযোগ শুরুর প্রাক্কালে তিনি এ কথা বলেন। পরে মহিউদ্দিন জিগাতলার ছয়তলা কলোনি, ট্যানারি মোড়সহ বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন।

এ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন শেখ ফজলে নূর তাপস। তিনি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থী হতে সংসদ সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি নেন (পরে মেয়র নির্বাচিত হন তাপস)। এতে ওই আসন শূন্য হয়ে গেলে উপ-নির্বাচন ঘোষণা করে ইসি। ঘোষিত তফসিল অনুসারে আগামী ২১ মার্চ এ আসনে নির্বাচন হবে।

ওই নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচারণায় নেমে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, এ আসনের এমপি শেখ ফজলে নূর তাপস ১১ বছর কাজ করেছেন। এলাকার প্রত্যেকটি অঞ্চলে ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। তারপরও কিছু কিছু জায়গায় উন্নয়ন কাজ বাকি রয়েছে। আমি নির্বাচিত হলে সেসব স্থানে প্রথম হাত দেব। বিশেষ করে এই এলাকাকে সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত হিসেবে গড়ে তুলব।

নৌকা প্রতীকের এ প্রার্থী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই বাংলাদেশকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে যে কর্মসূচি নিয়ে এগিয়ে চলেছেন, আমরা তার সহযাত্রী। আমাদের যার যার এলাকার সফল কাজের মধ্য দিয়েই বাংলাদেশকে সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলব। দেশের মানুষ এখন শান্তিতে আছে, স্বস্তিতে আছে। আগে হরতাল হতো জনগণের দাবি আদায়ের জন্য। এখন হরতাল ডাকা হয় বিএনপি নেতাদের সুবিধার জন্য। সে কারণে এখন আর হরতাল পালন হয় না।

বিএনপি প্রার্থীর (শেখ রবিউল আলম রবি) নির্বাচনী প্রচারণা প্রসঙ্গে মহিউদ্দিন বলেন, ওনারা তো আগেই বলেছেন, তারা আন্দোলনের কর্মসূচি হিসেবে মাঠে থাকবেন। ভোট চাওয়া বা জনগণের কাছে যাওয়া তাদের মুখ্য উদ্দেশ্যে নয়। আর বিএনপি নির্বাচনী প্রচারণায় নামলে কেউ তাদের বাধাও দেবে না। নির্বাচন কমিশন সবার জন্য নির্বাচনী প্রচারণার ব্যবস্থা করেছে। সবাই নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে পারবে। আমরা প্রতিযোগিতাপূর্ণ নির্বাচন চাই। জনগণের ম্যান্ডেট নিয়ে নির্বাচিত হতে চাই।সাবেক এ ব্যবসায়ী নেতা বলেন, ঢাকা-১০ আসন এলাকায় যানজট, শব্দদূষণ, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, মাদক নির্মূল করতে আমরা আলাদা কর্মসূচি নেব।

প্রচারণা চালানোর সময় সাধারণ মানুষের যেন কোনো প্রকার অসুবিধা না হয়, সেদিকে খেয়াল রেখে প্রচারণা চালানোর জন্য নৌকার কর্মী-সমর্থকদের নির্দেশনা দেন এ প্রার্থী।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

FaceBook