হবিগঞ্জের সৈয়দা কুমকুম শুধু শিক্ষকই নয় তিনি হচ্চেন মানবতার প্রতিক।

জিতু তালুকদার:: সারা বিশ্বে করোনার আক্রমণে হিমসিম খাচ্ছে, সরকারসহ সাধারণ মানুষ দাঁড়িয়েছে মানুষের পাশে। অনেক সামাজিক সংগঠন বিভিন্ন ভাবে মানুষের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন, তেমনি ভাবে হবিগঞ্জের সৈয়দ আব্দুল মুকিত ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দা শরিফা আক্তার কুমকুম মহামারি করোনা দুর্যোগে সৈয়দ আব্দুল মুকিত ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিভিন্ন সময় অসহায় গরীব মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী দিয়ে আসছেন।

গত (৪ জুলাই) বিকাল ৩.৩০ ঘটিকায় হবিগঞ্জ শহরতলী অাইডিয়াল হাই স্কুল প্রাঙ্গনে সৈয়দ আব্দুল মুকিত ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে গরীব ও মেধাবী ৫০ জন শিক্ষার্থীর মাঝে উপহার ও মাস্ক বিতরণ করেন। আইডিয়াল স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা মিসেস আঞ্জুমান আরা বেগমের সভাপতিত্বে এবং অগ্রণী ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক জনাব মোঃ সলিম উল্লাহ এর পরিচালনায় স্কুলের ছাত্র মোঃ মোতাহের হোসেনের কন্ঠে পবিত্র কোরআন হতে তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্টান শুরু করেন। উপহার বিতরণ অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মরহুম সৈয়দ আব্দুল মুকিত সাহেবের সুযোগ্য উত্তরসূরি ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্টাতা চেয়ারম্যান ও হবিগঞ্জ পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের অাহবায়ক শিক্ষিকা সৈয়দা শরীফা আক্তার কুমকুম। অনুষ্টানে সৈয়দা কুমকুম বলেন সকল শিক্ষা প্রতিষ্টানেই অনেক দরিদ্র পরিবারের বাচ্চারা পড়ালেখা করে । করোনা দুর্যোগের শুরু হতে আমার বাবার নামে প্রতিষ্টিত সৈয়দ আব্দুল মুকিত ফাউন্ডেশন হতে শহর ও গ্রামের বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ বিতরণ করে আসছি। বিশ্বব্যাপী এই দুর্যোগে একজন শিক্ষক হিসেবে আমি প্রিয় শিক্ষার্থীদের হাতে সামান্য উপহার দিতে পেরে ভাল লাগলো। তিনি আরোও বলেন সৈয়দ আব্দুল মুকিত ফাউন্ডেশন হতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টানের গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে এই উপহার বিতরণ অব্যহত থাকবে। এছাড়াও তিনি বলেন, পড়ালেখা চালিয়ে যেতে প্রয়োজনীয় শিক্ষা উপকরণ ও সামর্থ্য অনুযায়ী আর্থিক সহায়তাও দেওয়া হবে। এই দুর্যোগে “আমি অবশ্যই গরীব ও মেধাবী ছাত্র ছাত্রীদের পাশে আছি এবং ইনশাল্লাহ পাশে থাকব”। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে সৈয়দা কুমকুম ম্যাডাম বলেন এই দুর্যোগে যেহেতু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। তাই এই বছর সময় নষ্ট করা যাবে না। নিজেই মনোযোগী হয়ে পড়ালেখা চালিয়ে যেতে হবে। তোমাদের পড়ালেখা সঠিকভাবে চালিয়ে যাওয়ার জন্য হবিগঞ্জের বিভিন্ন বিদ্যালয়ের নামে ফেইসবুকে পেইজ খোলা হয়েছে। সেখানে আমরা প্রয়োজনীয় ক্লাসগুলো আপলোড করে থাকি যা তোমাদের পড়ালেখায় অনেক সহায়ক হবে। উক্ত অনুষ্ঠানে অত্র বিদ্যাল্যের সিনিয়র শিক্ষক জনাব আব্দুল কুদ্দুছ, মাওলানা শিক্ষক জনাব আব্দুল মজিদ, শিক্ষক প্রশান্ত কুমার পাল, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মিসেন আঞ্জুমান আরা বেগম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। বক্তারা একজন নারী নেত্রী হিসেবে সৈয়দা শরীফা আক্তার কুমকুমের এরকম ব্যতিক্রমধর্মী উপহার বিতরণের প্রসংসা করেন। তারে বলেন করোনা দুর্যোগে হবিগঞ্জে তথা সারা বাংলাদেশেও সৈয়দা শরীফা আক্তার কুমকুম একটি উদাহরণ হয়ে থাকবে। এছাড়া সবাই তার পরিবার সহ সবার মঙ্গল কামনা করেন। স্কুলের শিক্ষকগণ তাদের প্রতিষ্টানের শিক্ষার্থীদেকে এরকম উপহার দেয়ায় সৈয়দা আব্দুল মুকিত ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দা শরিফা আক্তার কুমকুম এর প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। অনুষ্টানের শেষে স্কুলের মাওলানা শিক্ষক জনাব আব্দুল মজিদ মহোদয় মরহুম সৈয়দ আব্দুল মুকিত এর রুহের মাগফেরাতের জন্য দোয়া পরিচালনা করেন।

PCI_Dealer Add__GIF

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

FaceBook